২১শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার, সন্ধ্যা ৬:৩১
ব্রেকিংনিউজ :
Logo প্রতিষ্ঠানগুলোতে ধাপে ধাপে ঈদের ছুটি দেওয়া হলে সড়কে চাপ কমবে: ডিআইজি Logo রূপগঞ্জে ১২শ দুস্থ পরিবারকে আইনজীবীর অর্থ প্রদান Logo মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও অপ-প্রচারের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন Logo হাসিনা অটিজমে অটিস্টিকদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ Logo আদালত থেকে পালালো আসামি, অবশেষে আটক Logo ধান্ধাবাজি করলে আমার বাড়িঘর ও ব্যবসা বন্ধক রাখতাম না: শামীম ওসমান Logo আড়াইহাজারে সন্ত্রাসী-মাদক মামলায় ইউপি সদস্য গ্রেফতার Logo নিখোঁজ স্কুলছাত্রের লাশ ভেসে উঠলো  বুড়িগঙ্গা নদীতে Logo নুরুল হকের বাড়ী পুলিশ ও সন্ত্রাসী দিয়ে দখলের পায়তারা, পুলিশ সুপার এবং ডি.সি বরাবর অভিযোগ Logo ইন্টারনেট সংযোগ ব্যবহার করতে না দেয়ায় গৃহবধূকে ছুরিকাঘাত

সিদ্ধিরগঞ্জে বিয়ের প্রলোভনে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ

সবারকন্ঠ রিপোর্ট
  • আপডেট : জুন, ১, ২০২২, ১১:৫১ অপরাহ্ণ
  • ১৭৭ ০৯ বার দেখা হয়েছে
বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একসন্তানের জননীকে ধর্ষণের আভিযোগ, গ্রেফতার ১
প্রতীকী ছবি

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে বিয়ের প্রলোভনে নবম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে হীরা নামে এক বখাটের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় বুধবার (১ মে) সকালে ভুক্তভোগী ওই ছাত্রী বিয়ের দাবিতে সিদ্ধিরগঞ্জের পাগলা বাড়ি এলাকায় অভিযুক্তের বাসায় যায়। সেখানে অভিযুক্ত হীরার মা হাসিনা, খালা ও তার বোন তাকে মারধর করে বের করে দেয়। পরে দুপুরের দিকে সে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

 

অভিযোগ ও ভুক্তভোগী সূত্রে জানাগেছে, মিজমিজি পাগলা বাড়ি এলাকায় খালার বাসায় থেকে ভুক্তভোগী লেখাপড়া করত। গত ৮ মাস পূর্বে অভিযুক্ত হীরার সাথে তার পরিচয় হয়। হীরা মিজমিজি পাগলা বাড়ি এলাকায় ইন্টারনেট ব্যবসায়ী রুবেলের অধীনে কাজ করে। সে সুবাধে হীরা মহল্লার বিভিন্ন বাসায় ইন্টারনেট সংযোগ ও মেরামতের জন্য অবাধে যাতায়াত করত। এর সূত্র ধরেই তার সাথে পরিচয় হয়।

 

পরিচয়ের কিছুদিন পর মেয়েটিকে নিয়ে হীরা এক বাসায় যায়। সেখানে তাকে দুধ পান করায়। এরপর মেয়েটি অজ্ঞান হয়ে পড়ে। জ্ঞান ফিরে আসার পর সে নিজেকে অসংগত অবস্থায় দেখতে পেয়ে প্রতিবাদ করলে হীরা তাকে বিয়ের আশ্বাস দেয়। এরপর সে নানা কৌশলে ভুক্তভোগীকে একাধিকবার ধর্ষণ করে।

 

এক পর্যায়ে মেয়েটি জানতে পারে হীরা বিবাহিত। এ নিয়ে তাদের মধ্যে মনোমলিন্য সৃষ্টি হয়। সর্বশেষ গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে সিদ্ধিরগঞ্জের আটি ওয়াবদা কলোনি এলাকায় ছাত্রীকে তার এক খালার বাসায় একা পেয়ে জোরপূর্বক ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে হীরা।

 

বিষয়টি টের পেয়ে তার খালা গালমন্দ করলে বুধবার সকালে সে বাসা থেকে বের হয়ে বিয়ের দাবিতে হীরার বাসায় যায়। সেখানে হীরা তাকে দেখে বাসা থেকে বের হয়ে যায়। পরে হীরার মা হাসিনা, খালা ও তার বোন তাকে মারধর করে বের করে দেয়।

 

এ বিষয়ে অভিযোগ তদন্তকারী কর্মকর্তা সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) রিপন জানান, অভিযোগ পেয়েছি। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

 

 

সংবাদটি শেয়ার করে সবাই কে দেখার সুযোগ করে দিন
      
 
   

এ বিভাগের আরো খবর
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত  © ২০২১ সবার কন্ঠ
Design & Developed BY:Host cell BD
ThemesCell