জুলাই ১৫, ২০২৪, ৫:২৪ অপরাহ্ন
Shahalam Molla
  • আপডেট : মার্চ, ৩০, ২০২৪, ৯:৩৬ অপরাহ্ণ
  • ৭০৩৪ ১৯ বার দেখেছে

শেখ রাসেল পার্ক আগামী মাসে উদ্বোধন করবে প্রধানমন্ত্রী: মেয়র আইভী

সবারকন্ঠ রিপোর্ট
  • আপডেট : মে, ২৭, ২০২৩, ১০:০৮ অপরাহ্ণ
  • ১৪৪ ১৯ বার দেখেছে
শেখ রাসেল পার্ক আগামী মাসে উদ্বোধন করবে প্রধানমন্ত্রী: মেয়র আইভী

দেওভোগে অবস্থিত বঙ্গবন্ধুর পরিবারের সর্বকনিষ্ঠ সদস্য শেখ রাসেলের নামেরপার্কটি আগামী মাসে উদ্বোধন হবে। উদ্বোধন করবে প্রধানমন্ত্রী।

 

নারায়ণগঞ্জে একটি টুর্নামেন্টের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে শনিবার (২৭ মে) বিকালে এই তথ্য জানান নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী।

 

তিনি বলেন, ‘পার্কে ১৮ একর জমি আছে। এর ৭ একরে করা হয়েছে লেক। জমি গুলো রেলওয়ের হলেও আমি জোড় করে দখল করে পার্কটি করেছি। আগামী মাসে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এটা উদ্বোধন করবেন।’

 

শেখ রাসেল পার্ক সম্পর্কে তিনি আরও বলেন, ‘এখানে এক সময় বস্তি ছিল, মাদকের অভয়ারণ্য, অসামাজিক কার্যকলাপ ছিল, অনেক কষ্টে এই মাঠ করেছি, আশা করি জায়গাটি আমাদের রেল মন্ত্রী দিয়ে দিবেন।’

 

মেয়র সেলিনা হায়াত আইভী বলেন, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনে ২৭টি ওয়ার্ড। ওয়ার্ড গুলোতে অনেক গুলো মাঠ আমরা করেছি, ইতোমধ্যে আমরা ১৮টি মাঠের কার্যক্রম সম্পূর্ণ হয়েছে। বাকি গুলো করতে পারিনি। কারণ জায়গার অভাব। যেখানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বলেন, শিশুদের জন্য মাঠ, পার্ক করতে হবে। সেখানে আমরা জায়গা পাইনি। যদি স্মার্ট নগরী গড়তে হয়, যদি শিশু বান্ধব নগরী করতে হয়, প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি যদি রক্ষা করতে হয়, তাহলে সিটি করপোরেশনের ভিতরে যত সরকারি জায়গা আছে, সেটা যে সংস্থারই হোক না কেন, আমাদেরকে শর্ত সাপেক্ষে হস্তান্তর করা উচিৎ। সেখানে আমরা মাঠ করবো, পার্ক করবো, জনগণের চলাচলের ব্যবস্থা করবো।

 

এ সময় ক্রীড়া সংস্থার সমালোচনা করে মেয়র বলেন, আমাদের দু’টি মাঠ ক্রীড়া সংস্থা দখল করে রেখেছে। জেলা ক্রীড়া সংস্থা থেকে এই মাঠ গুলোতে খেলা হয় না। টুর্নামেন্ট ছাড়ে না বিধায় পরিত্যাক্ত অবস্থা পড়ে থাকে। আমার দুইটা মাঠ ওদের কাছে আছে। আমি অনুরোধ করবো, আমাদের মাঠ আমাদের দিয়ে দেওয়া হোক।

 

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেন, নারায়ণগঞ্জ এক সময় রাজনীতিতে, অর্থনীতিতে সমৃদ্ধ ছিল। বাংলাদেশের রাজধানী ছিল সোনারগাঁ। কোন কিছুতেই আমরা পিছিয়ে ছিলাম না। এখন আমরা পিছিয়ে গেছি। আমরা এখন আমাদের ঐতিহ্যকে ফিরিয়ে আনতে চাই। খেলাধুলার মাধ্যমে, সাংস্কৃতির মাধ্যমে এবং সুন্দর রাজনৈতিক চর্চার মাধ্যমে। আমাদের নেতৃত্বের প্রতিযোগীতা থাকবে, তবে সেটা সুষ্ঠু ভাবে। আমরা এমন নেতাকে নেতৃত্ব দিতে চাই, যে মানুষের কাতারে আসবে, মানুষের কল্যাণে কাজ করবে। শেখ হাসিনার হয়ে কাজ করবে। মুখে বলবে শেখ হাসিনা, কাজ করবে অন্যকিছু। বলবে নৌকা, কাজ করবে আরেকটা। আমরা এমন নেতা চাই না। ২০০৩ সালে যখন অনেকে কথা বলতে পারে নাই, এই শহরের অনেক রাঘববোয়ালরা পালিয়ে গিয়েছিল, তখন আমার পাশে এসে দাঁড়িয়ে ছিলেন আহসানুল্লাহ চাচা। সেই সময় আমি নির্বাচন করেছি।

 

পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা যুব লীগের সভাপতি আবদুল কাদির প্রমুখ।

 

 

 

সংবাদটি শেয়ার করে সবাই কে দেখার সুযোগ করে দিন
      
 
   

এ খবরটি আপনার বন্ধুকে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2020 sabarkantho
Design & Developed BY:Host cell BD
asterpress