২রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, রাত ১১:২৮
ব্রেকিংনিউজ :

শহরে রিকশা সংগ্রাম পরিষদের আনন্দ সমাবেশ ও বিজয় মিছিল

সবারকন্ঠ রিপোর্ট
  • আপডেট : এপ্রিল, ২২, ২০২২, ১২:৩৫ পূর্বাহ্ণ
  • ১৬১ ০৯ বার দেখা হয়েছে
শহরে রিকশা সংগ্রাম পরিষদের আনন্দ সমাবেশ ও বিজয় মিছিল

ইজিবাইকসহ ব্যাটারিচালিত যানবাহন মহাসড়ক ব্যতীত সর্বত্র চলাচলের অনুমতি প্রদান করে সুপ্রিম কোর্টের দেয়া আদেশে স্বস্তি ও আনন্দ প্রকাশ করে বিজয় মিছিল করেছে রিকশা, ব্যটারি রিকশা-ভ্যান ও ইজিবাইক চালক সংগ্রাম পরিষদ নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখা। বৃহস্পতিবার (২১ এপ্রিল) সকাল ১১ টায় নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে এ আনন্দ সমাবেশ করে রকশা, ব্যটারি রিকশা-ভ্যান ও ইজিবাইক চালক সংগ্রাম পরিষদ নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার নেতাকর্মীরা। পরে তারা সড়কে বিজয় মিছিল করেন।

 

এ সময় তারা অবিলম্বে ইজিবাইকসহ ব্যাটারিচালিত যানবাহনের জন্য প্রণীত খসড়া ‘থ্রী-হুইলার ও সমজাতীয় মোটরযানের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা ও নিয়ন্ত্রন নীতিমালা-২০২১’ চুড়ান্ত ও বাস্তবায়ন এবং সড়ক-মহাসড়কে বিকল্প লেন নির্মাণের দাবি জানান।

 

সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন রিকশা, ব্যটারি রিকশা-ভ্যান ও ইজিবাইক চালক সংগ্রাম পরিষদের কেন্দ্রীয় সদস্যসচিব প্রকৌশলী ইমরান হাবিব রুমন। রিকশা, ব্যটারি রিকশা-ভ্যান ও ইজিবাইক চালক সংগ্রাম পরিষদ নারায়ণগঞ্জ জেলার সমন্বয়ক মেহেদী হাসানের সভাপতিত্বে আনন্দ সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি ও সংগ্রাম পরিষদের উপদেষ্টা আবু নাঈম খান বিপ্লব,  গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি সেলিম মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম শরীফ, রি-রোলিং স্টিল মিলস শ্রমিক ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক এস এম কাদির,  সংগ্রাম পরিষদের জেলার নেতা মিজানুর রহমান, খোরশেদ আলম, কামাল হোসেন, আনিসুর রহমান।

 

ইমরান হাবিব রুমন বলেন, সারাদেশের চালক, মেকানিক, ক্ষুদে মালিক, গ্যারেজ মালিকসহ প্রায় ৫০ লাখ মানুষ ইজিবাইকসহ ব্যাটারিচালিত যানবাহনের সাথে সরাসরি যুক্ত।এর সাথে তাদের উপর নির্ভরশীল প্রায় আড়াই থেকে তিন কোটি মানুষ। সুপ্রিম কোর্টের এ আদেশের ফলে এ সেক্টরের মানুষ সাময়িকভাবে কিছুটা স্বস্তি ও আনন্দিত হয়েছে। কিন্ত সাময়িক স্বস্তি আসলেও পুরো সংকট নিরসনে আরোও অনেক উদ্যোগ নিতে হবে। সারাদেশে চলাচলরত ইজিবাইকসহ ব্যাটারি চালিত ৪০ লাখ যানবাহন নিবন্ধন, রুট পারমিট ও লাইসেন্স প্রদানের জন্য সরকার প্রনীত খসড়া ‘থ্রী-হুইলার ও সমজাতীয় মোটরযানের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা ও নিয়ন্ত্রন নীতিমালা-২০২১’ চুড়ান্ত ও বাস্তবায়ন দ্রুত করতে হবে। দেশের সড়ক-মহাসড়ক সমুহ জেলা-উপজেলাসহ বাজারের পাশ দিয়ে বা উপর দিয়ে গিয়েছে। ফলে গণপরিবহন না থাকায় ইজিবাইক, রিকশাসহ ব্যাটারিচালিত যানবাহন ছাড়া এ সমস্ত স্থানে চলাচল করা অত্যন্ত কঠিন। মহাসড়কে ইজিবাইকসহ স্বল্প গতির ও লোকাল যানবাহন চলাচলের জন্য পৃথক লেন বা সার্ভিস রোড নির্মান না করেল সড়ক-মহাসড়কে সার্বিক শৃঙ্খলা যানজট নিরসন করা যাবে না।

 

নেতৃবৃন্দ বলেন, সুপ্রিম কোর্টের রায় হওয়ার পরও এখনও ইজিবাইকসহ ব্যাটারিচালিত রিকশা চলাচলে বাধা প্রদান করা হচ্ছে। পুলিশ রেকার বিলের নামে ব্যাটারি রিকশা আটকে টাকা আদায় করছে। এসুযোগে বিভিন্ন সন্ত্রাসী চক্রও এদের কাছ থেকে চাদা আদায় করছে। অবিলম্বে এসমস্ত অবৈধ টাকা আদায় বন্ধ করে সুপ্রিম কোর্টের রায়ের প্রতি সম্মান দেখিয়ে ব্যাটারিচালিত যানবাহন নির্বিঘ্নে চলাচলের ব্যবস্থা করতে হবে। ব্যাটারিচালিত যানবাহনের সেক্টর ঘিরে সারাদেশের কোটি কোটি মানুষের জীবন-জীবিকা ও তাদের পরিবহন নিয়ে একদল স্বার্থান্বেষী মহল ও ব্যবসায়ি গোষ্ঠী মিলে সিন্ডিকেট গড়ে তোলার অপচেষ্টা করছে। এর বিরুদ্ধে  প্রশাসনকে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে।

 

আনন্দ সমাবেশ শেষে একটি বিজয় মিছিল নারায়ণগঞ্জ শহর প্রদক্ষিণ করে।

 

সংবাদটি শেয়ার করে সবাই কে দেখার সুযোগ করে দিন

এ বিভাগের আরো খবর
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত  © ২০২১ সবার কন্ঠ
Design & Developed BY:Host cell BD
ThemesCell