২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার, সকাল ৯:৪৬
ব্রেকিংনিউজ :

বন্দর ধামগড়ে আ.লীগ নেতা অহিদ ও আইয়ূব মেম্বারের বিরুদ্ধে মাটি কেটে বিক্রির অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার
  • আপডেট : মে, ১৫, ২০২৩, ৮:২৬ অপরাহ্ণ
  • ১১৯ ০৯ বার দেখা হয়েছে
বন্দর ধামগড়ে আ.লীগ নেতা অহিদ ও আইয়ূব মেম্বারের বিরুদ্ধে মাটি কেটে বিক্রির অভিযোগ

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার ধামগড় ইউনিয়নে রাতের আঁধারে ফসলি জমি থেকে মাটি কেটে বিক্রির অভিযোগ ওঠেছে আওয়ামীলীগ নেতা অহিদুজ্জামান অহিদ ও ধামগড় ইউপি ৭নং ওয়ার্ডের আইয়ূব মেম্বারের বিরুদ্ধে। এতে করে আশেপাশের ফসলি জমিগুলো ধসে পড়ার আশঙ্কা করছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

 

এদিকে ধামগড় ইউনিয়ন পরিষদের ৭নং ওয়ার্ড মেম্বার হওয়ায় স্থানীয় লোকজন প্রতিবাদ করতে সাহস পাচ্ছেন না বলেও অভিযোগ। ধামগড় ইউনিয়ন থেকে এর আগেও বহুবার মাটি না কাটার জন্য উপজেলায় মৌখিকভাবে অনুরোধ করা হলেও তার কোন প্রভাব পড়েনি সেখানে।

 বন্দর ধামগড়ে আ.লীগ নেতা অহিদ ও আইয়ূব মেম্বারের বিরুদ্ধে মাটি কেটে বিক্রির অভিযোগ

সরেজমিনে ওই এলাকায় দেখা যায়, ধামগড় ইউনিয়নের মনারবাড়ী, মালামত, তুলাতলী, আমৌর বটতলা, জাঙ্গাল, হালুয়া পাড়া, কামতাল সহ বেশ কয়েকটি গ্রামে সংঘবদ্ধ ভাবে জমি থেকে প্রাং ১০ ফুট গভীর করে মাটি কেটে নিচ্ছেন স্থানীয় মেম্বার সহ এলাকার অসাধু ব্যবসায়ীরা। স্থানীয় লোকজন প্রথমদিকে কয়েকবার বাধা দিলেও প্রভাবশালীরা নানা ভয়ভীতি দেখিয়ে মাটি কাটা চালিয়ে যাচ্ছে। দিনে না কাটলেও সরকারি অফিস ছুটি হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বিকেল থেকে শুরু হয়ে যায় মাটি কাটার মহোৎসব। বিশেষ করে রাতের আধারেই ফসলি জমির মাটি কেটে বিক্রি করে। এসব মাটি পরিবহনে ব্যবহার করা হয় ড্রাম ট্রাক। এতে করে রাস্তা ঘাটেরও ব্যাপক ক্ষতি সাধন হচ্ছে।

 

মনারবাড়ী রানীজী এলাকার আবু বক্কর সিদ্দিক নামে এক কৃষক বলেন, এই অঞ্চলের অধিকাংশ মানুষের জীবিকা চলে কৃষি কাজ করে। প্রতিটি জমিতে বছরে দুই থেকে তিনটি ফসল হয়। এখানে আমার ২টি জমি আছে ১৫ শতাংশ করে ৩০ শতাংশ। আমি মাটি বিক্রি করবোনা বললেও জোর করে মাটি কেটে নেয় ভূমিদস্যু হাফেজ আইয়ূব মেম্বার ও আওয়ামী লীগ নেতা অহিদুজ্জামান।

 

কৃষি কাজই যার সম্বল এক ভুক্তভোগী খলিলুর রহমান বলেন, জম্মের পর থেকেই আমি আমার বাবাকে দেখি এই জমি চাষ করে আসতে আমরাও এই জমি আবাদ করছি এখন আমাদের ছেলেদের যোর করে মাটি কেটে নেয় তারা। মাটি নেওয়ার ফলে আমাগো এমপির দেওয়া ২ কিলোমিটার রাস্তাটির এখন বেহাল দশা যে কোন মূর্হতে ধসে পরতে পারে রাস্তাটি।

বন্দর ধামগড়ে আ.লীগ নেতা অহিদ ও আইয়ূব মেম্বারের বিরুদ্ধে মাটি কেটে বিক্রির অভিযোগ

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ধামগড় ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ড হাফেজ আইয়ূব মেম্বার বলেন, আমরা জমি কিনে মাটি নিয়ে আসি এটাও কি অপরাধ তাহলে আরো মানুষ যে দিনদুপুরে নেয়। আমরা তো এলাকাবাসীর সমস্যা হবে দেখে রাতে মাটি কেটে নেই।

 

আওয়ামীলীগ নেতা অহিদুজ্জামান অহিদ বলে আমরা মাটি আগে কেটেছি এখন আর মাটি কাটি না।

 

ধামগড় ইউনিয়ন চেয়ারম্যান কামাল হোসেন বলে ফসলি জমির মাটি বিক্রি করা অন্যায় এটা আমার জানা নেই তবুও আমি বিষয়টি জেনে আইনানুগ ব্যবস্থা নিবো।

 

 

সংবাদটি শেয়ার করে সবাই কে দেখার সুযোগ করে দিন

এ বিভাগের আরো খবর
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত  © ২০২১ সবার কন্ঠ
Design & Developed BY:Host cell BD
ThemesCell